প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল ২৪ নভেম্বরের মধ্যে

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (DPE) সূত্রে জানা গেছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল ২৪ নভেম্বরের মধ্যে প্রকাশ হতে পারে। নভেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে ফলাফল ঘোষণার কথা থাকলেও তা স্থগিত করে বোর্ড। সূত্র জানায়, দেশের ৬২টি জেলার চূড়ান্ত মনোনীত প্রার্থীদের তালিকা একসঙ্গে প্রকাশ করা হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিপিই মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াৎ সোমবার (৭ নভেম্বর) জাগো নিউজকে বলেন, বুয়েটের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রস্তুত করা হচ্ছে। দেশের ৬২ জেলায় আয়োজিত মৌখিক পরীক্ষার ফল বুয়েটে পাঠানো হয়েছে। ১৫ নভেম্বরের মধ্যে ফল প্রকাশের পরিকল্পনা করা হলেও কাজ শেষ করতে দেরি হওয়ায় চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

গত ১২ অক্টোবর দিনাজপুরে তৃতীয় ধাপের মৌখিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। এর মাধ্যমে দেশের সব জেলার পরীক্ষা শেষ হয়। চলমান নিয়োগ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রাক-প্রাথমিক স্তরে ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। এ ছাড়া অনুমোদিত শূন্যপদে ৩২ হাজার ৫৭৭ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে।

মহাপরিচালক জানান, এই নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে সারাদেশে ৩২ হাজার ৫৭৭ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। নভেম্বরে ফলাফল ঘোষণার পর নির্বাচিত প্রার্থীদের যোগদানের জন্য পরবর্তী ১৫ দিন সময় দেওয়া হবে। ডিসেম্বরের মধ্যে অন্তর্ভুক্তি প্রক্রিয়া শেষ করে ১ জানুয়ারি থেকে যোগদানকারী শিক্ষকরা পাঠদান শুরু করতে পারবেন।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের জন্য ২০২০ সালে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে দুই বছর পর নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়। দেশের ৬১টি জেলায় তিন ধাপে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তারপর ধাপে ধাপে লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয় এবং তারপর মৌখিক পরীক্ষা শুরু হয়।